ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা বৃহস্পতিবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৪ আশ্বিন ১৪২৯
ই-পেপার বৃহস্পতিবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২
http://www.shomoyeralo.com/ad/Amin Mohammad City (Online AD).jpg

http://www.shomoyeralo.com/ad/Untitled-1.jpg
সাফে নতুন সূর্য বাংলার মেয়েরা: সাফ চ্যাম্পিয়নদের আন্তরিক অভিনন্দন
প্রকাশ: বুধবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১১:১৪ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 80

সোমবার কাঠমান্ডুর দশরথ স্টেডিয়ামে স্বাগতিক নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে নারী সাফে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করল বাংলাদেশ ফুটবল দল। এই দিনটার জন্য অপেক্ষায় ছিল পুরো দেশ। গত তিন দিনে আলোচনার কেন্দ্রে ছিলেন দেশের নারী ফুটবলাররা। অবশেষে সব উৎকণ্ঠার অবসান ঘটিয়ে পরম শান্তির প্রলেপ বুলিয়ে দিলেন সাবিনা খাতুন ও তার সতীর্থরা।

নারী সাফ ফুটবলে ভারতের একাধিপত্য খর্ব করে নতুন সূর্য ওড়ালেন গোলাম রব্বানী ছোটনের শিষ্যরা। আগের পাঁচ আসরেই শিরোপা ভারতের ঘরে। এবার শ্রেষ্ঠত্বের তালিকায় যুক্ত হলো বাংলাদেশের নারী ফুটবল দল। সাফ ফুটবলে বাংলাদেশ সর্বশেষ ট্রফি উৎসব করেছে ২০০৩ সালে। ছেলেদের ওই আসরে সর্বশেষ চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ, ১৯ বছর আগে। প্রায় দুই দশক পর সেই উচ্চতায় নিয়ে গেলেন বাংলাদেশের নারী ফুটবলাররা। ফাইনালে বাংলাদেশের হয়ে দুটি গোল করেন ফরোয়ার্ড কৃষ্ণা রানি সরকার এবং বাকি গোলটি করেন শামসুন নাহার জুনিয়র। 

এর আগে ২০১৬ সালে ভারতে অনুষ্ঠিত সাফে প্রথমবারের মতো ফাইনাল খেলেছিল বাংলাদেশ নারী দল। সেবার শিলিগুড়িতে ফাইনালে স্বাগতিকদের কাছে ৩-১ গোলে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হয় নারী ফুটবল দলের। এবার স্বাগতিক নেপালকে হারিয়েই ছয় বছরের আক্ষেপ মুছে দিল সাবিনার দল।

বৃষ্টিভেজা কর্দমাক্ত মাঠে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলেছে বাংলাদেশ দল। প্রথম মিনিটেই আক্রমণে যান সাবিনারা। বক্সের বাইরে থেকে মারিয়া মান্ডার দুর্দান্ত শট ফেরান নেপালের গোলরক্ষক আঞ্জিলা থুম্বাপো সুব্বো। খেলার ৯ মিনিটে আক্রমণে আসে নেপাল। আনিতা কেসির শট ফিরিয়ে দেন বাংলাদেশের গোলরক্ষক রূপনা চাকমা। 

খেলার ১০ মিনিটে সিরাত জাহান স্বপ্নাকে তুলিয়ে শামসুন নাহার জুনিয়রকে মাঠে নামান কোচ ছোটন। ১৩ মিনিটে বাংলাদেশকে এগিয়ে নেন বদলি খেলোয়াড় শামসুন নাহার। এ সময় মনিকা চাকমার বাড়ানো বলে ডি-বক্সে ঢুকে প্লেসিং শটে গোল করেন তিনি। খেলার ৪১ মিনিটে বাংলাদেশের হয়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন কৃষ্ণা রানি। অধিনায়ক সাবিনার বল ডি-বক্সের সামনে পান কৃষ্ণা। নিয়ন্ত্রণ নিয়ে একটু এগিয়ে বাঁ পায়ের শটে গোল করেন এই ফরোয়ার্ড। ২-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় বাংলাদেশ।

দ্বিতীয়ার্ধে গোল পরিশোধে মরিয়া হয়ে ওঠে নেপাল। খেলার ৬৯ মিনিটে নেপালের হয়ে ব্যবধান কমান অনিতা (২-১)। তবে ৭৭ মিনিটে আরেকটি গোল করে সব উত্তাপ শেষ করে দেন কৃষ্ণা (৩-১)। বাকি সময় এই লিড ধরে রেখেই শিরোপা উৎসবে মেতে ওঠেন সাবিনা ও তার সতীর্থরা। ফাইনালে ম্যাচসেরা হয়েছেন দুটি গোল করা কৃষ্ণা রানি। 

আসরের সর্বোচ্চ গোলদাতা (৮ গোল) ও গোল্ডেন বলের পুরস্কার উঠেছে অধিনায়ক সাবিনা খাতুনের হাতে। আসরে সেরা গোলরক্ষক হয়েছেন রূপনা চাকমা। ট্রফির সঙ্গে ব্যক্তিগত সব পুরস্কারও জিতেছেন বাংলাদেশের মেয়েরা। এবারের সাফ মিশনে যাওয়ার আগে ঢাকায় বাংলাদেশের কোচ ছোটন বলেছিলেন, ‘এবারের সাফে দেখা যাবে ভিন্ন এক বাংলাদেশকে।’ শিষ্যদের দিয়ে শিরোপা জিতিয়ে সেই প্রতিশ্রুতি পালন করলেন বাংলাদেশ কোচ। বাংলাদেশে নারী ফুটবলের পথ বড় বন্ধুর। সামাজিক সঙ্কটের কারণে হাতে গোনা কয়েকটি জেলা ছাড়া দেশের বেশিরভাগ জায়গাতেই নারী ফুটবলারদের চর্চা নেই বললেই চলে। এবার সাফে অপরাজিত চ্যাম্পিয়নের পর এ পরিস্থিতি বদলে যাবে বলে দেশের ক্রীড়ামোদীরা মনে করছেন।

সাফ জিতল বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। দেশের মানুষের স্বপ্নপূরণ হলো। মেয়েদের শ্রম, মেধা আর গোলাম রব্বানী ছোটনের কৌশল লিখে দিল এক নতুন ইতিহাস।

এই স্বপ্নপূরণের জন্য সাবিনারা কতই-না শ্রম-ঘাম ঝরিয়েছেন। পাহাড় সমান সামাজিক বাধা পেরোতে হয়েছে মেয়েদের। নারী ফুটবল দল সাফসেরা হয়ে দেশকে সম্মান এনে দিয়েছে। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে উঠে আসা এই মেয়েগুলো বাংলাদেশের গর্ব। 

তাদের এই জয়, অপরাজেয় মনোভাব দেশের লাখো মেয়েকে অনুপ্রেরণা জোগাবে। আমাদের বৃত্তবন্দি সমাজে মেয়েদের চলার পথকে খানিকটা হলেও সহজ করে দেবে। কোচ গোলাম রব্বানী ছোটনসহ নারী ফুটবল দলের সঙ্গে  সংশ্লিষ্ট সবাইকে অভিনন্দন। সাফে চ্যাম্পিয়ন মেয়েদের হৃদয়ের অন্তস্তল থেকে শুভেচ্ছা ও অভিবাদন। শত বাধা, কত কটুকথা পেরিয়ে সাবিনা-কৃষ্ণা-রূপনাদের এ পর্যায়ে নিয়ে আসতে কতবার আঁচলে চোখ মুছতে হয়েছে গর্ভধারিণী মাকে। বাংলা মা, তুমি না-হয় এবার আনন্দে একটু কাঁদো।

/জেডও




http://www.shomoyeralo.com/ad/Google-News.jpg

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : shomoyeralo@gmail.com