ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শুক্রবার ১ জুলাই ২০২২ ১৭ আষাঢ় ১৪২৯
ই-পেপার শুক্রবার ১ জুলাই ২০২২
http://www.shomoyeralo.com/ad/Amin Mohammad City (Online AD).jpg

ভিআইপি ডিলাক্সে হাজী সেলিম
আলমগীর হোসেন
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২৪ মে, ২০২২, ৮:৫৯ এএম আপডেট: ২৪.০৫.২০২২ ৯:২৭ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 118

সোমবার বিকাল ৪টা। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) কেবিন ব্লকের পঞ্চম তলায় গেলে চোখে পড়ে একটি কেবিনের বাইরে দাঁড়ানো তিনজন কারারক্ষী এবং দুজন পুলিশ সদস্য। কেবিন নম্বর ৫১১। দরজার ওপরে লেখা ‘ভিআইপি ডিলাক্স কেবিন’। এর বাম পাশেই দেয়ালে টানানো সাদা বোর্ডে রোগীর তথ্য। সেখানে নামের অংশে লেখা- হাজী মো. সেলিম।

হ্যাঁ, ভিআইপি ডিলাক্স কেবিনে থাকা এই রোগী হলেন- আওয়ামী লীগের আলোচিত সংসদ সদস্য হাজী সেলিম। যিনি দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের মামলায় দণ্ডিত হয়েছেন। রোববার দণ্ডপ্রাপ্ত হওয়ার পর কেবল একটিমাত্র রাত তাকে থাকতে হয়েছে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে। সেখানেও রাতে যথেষ্ট সামাজিক মর্যাদা দিয়েই হাজী সেলিমকে রাখা হয়েছিল বলে জানিয়েছেন কারাগারে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। 

এরপরই সোমবার কারাগার থেকে বিএসএমএমইউ হাসপাতালের ভিআইপি কেবিনে রাখা হয়েছে সাজাপ্রাপ্ত এমপি হাজী সেলিমকে। অবশ্য এ হাসপাতালেই হাজতি-কয়েদিদের জন্য একটি ‘প্রিজন ওয়ার্ড’ রয়েছে। তবে হাজী সেলিম একজন এমপি হওয়ায় কারাবন্দি হওয়া সত্ত্বেও তাকে ভিআইপি মর্যাদা দেওয়া হচ্ছে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন। এ ছাড়া এ মামলার আপিল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত তিনি এমপির মর্যাদা অনুসারে এ ধরনের সুযোগ-সুবিধা পাবেন বলেও জানিয়েছেন আইন বিশেষজ্ঞরা। 

এ প্রসঙ্গে বিএসএমএমইউ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নজরুল ইসলাম খান সময়ের আলোকে বলেন, হৃদরোগ বিভাগের অধীনে অধ্যাপক ডা. হারিসুল হকের তত্ত্বাবধানে হাজী সেলিম চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ভিআইপি ডিলাক্স কেবিন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কোন রোগীকে কোথায় ভর্তি রাখতে হবে সেটা চিকিৎসকরা নোট দিয়ে থাকেন। হাজী সেলিমের ক্ষেত্রেও চিকিৎসকের পরামর্শ অনুসারে হৃদরোগ বিভাগের অধীনে কেবিনে ভর্তি করা হয়েছে। তা ছাড়া হাজী সেলিমকে একজন সংসদ সদস্য হিসেবেই ভিআইপি মর্যাদা দেওয়া হচ্ছে।

বিএসএমএমইউ হাসপাতালের নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা যায়, ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ‘স্কট’ (নিরাপত্তা টহল দল) সুবিধা নিয়ে কারারক্ষীরা হাজী সেলিমকে সোমবার কেরানীগঞ্জের কারাগার থেকে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে আনেন। বেলা ১১টা ৫০ মিনিটে কেবিন ব্লকের পঞ্চম তলায় ৫১১ নম্বরের ভিআইপি ডিলাক্স কেবিনে ভর্তি করা হয়। সংশ্লিষ্টরা জানান, ওই ভিআইপি ডিলাক্স কেবিনের ভেতরে ফ্যান, এসি, অভিজাত খাট, টেবিল, চেয়ার, সোফা, টেলিভিশন, সংযুক্ত বাথরুমসহ যাবতীয় নানা সুবিধা রয়েছে।

সোমবার বিকালে ৫১১ নম্বরের কেবিনের সামনে গিয়ে দেখা যায়, ডিএমপির রাজারবাগ থেকে আসা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) জুলহাসের নেতৃত্বে দুজন এবং কারারক্ষী আমিরুল ইসলামের নেতৃত্বে তিনজন অবস্থান করছিলেন। ওই সময়ে কেবিনের সামনে বা আশপাশে আর কাউকে দেখা যায়নি। পুরান ঢাকার প্রভাবশালী রাজনীতিক এবং ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের এমপি হিসেবে স্থানীয় নেতাকর্মীদের ভিড় বা আনাগোনা কোনোটিই ছিল না সেখানে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপস্থিত পুলিশ সদস্য ও কারারক্ষীরা সময়ের আলোকে বলেন, এখানে বহিরাগত বা সাধারণ কাউকেই আসতে দেওয়া হচ্ছে না। কেবল পরিবারের সদস্য ব্যতীত যেন কাউকেই হাজী সেলিমের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে না দেওয়া হয়, সে ব্যাপারে সোমবার দুপুরে হাজী সেলিমের ছেলেরা এসেও বলে গেছেন। তবে বিকালে এ প্রতিবেদক হাজী সেলিমের বিষয়ে কথা বললে ওই সময় তিনি ঘুমাচ্ছেন বলে জানান নিরাপত্তায় নিয়োজিতরা।

এ প্রসঙ্গে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার সুভাষ কুমার ঘোষ সময়ের আলোকে বলেন, রোববার আদালতের নির্দেশনা অনুসারে হাজী সেলিমকে কেরানীগঞ্জে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়েছিল। একজন এমপি হিসেবে তার সামাজিক মর্যাদা দিয়েই কারাগারে রাখা হয় তাকে। পরে অসুস্থতার কারণে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা অনুসারে হাজী সেলিমকে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। রাতে হাজী সেলিম কেমন ছিলেন- এমন প্রশ্নে জেল সুপার বলেন, ‘তিনি স্বাভাবিক ছিলেন। আমাদের কারারক্ষীদের সঙ্গেও যথেষ্ট সম্মান দেখিয়েছেন।’

প্রসঙ্গত, দুদকের দায়ের করা জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের মামলায় ১০ বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত হাজী সেলিম গত রোববার বিকালে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৭-এ আত্মসমর্পণ করে জামিন চান। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক শহীদুল ইসলাম জামিন আবেদন নাকচ করে হাজী সেলিমকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

/জেডও

http://www.shomoyeralo.com/ad/Local-Portal_Send-Money_728-X-90.gif

আরও সংবাদ   বিষয়:  হাজী সেলিম  




http://www.shomoyeralo.com/ad/Google-News.jpg

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]