ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শুক্রবার ১ জুলাই ২০২২ ১৭ আষাঢ় ১৪২৯
ই-পেপার শুক্রবার ১ জুলাই ২০২২
http://www.shomoyeralo.com/ad/Amin Mohammad City (Online AD).jpg

মাহরাম ছাড়া নারীদের হজের বিধান
ইসলামের আলো ডেস্ক
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২৪ মে, ২০২২, ৫:০২ এএম আপডেট: ২৪.০৫.২০২২ ৫:০৩ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 115

জিজ্ঞাসা : নারীরা মাহরাম ব্যতিরেকে আটচল্লিশ মাইল বা এর চেয়ে বেশি দূরত্বের সফর একাকী করতে পারে না- এ কথা আমি আলেমের কাছ থেকে জেনেছি। যে পরিমাণ অর্থ থাকলে হজ ফরজ হয় তা আমার আছে। কিন্তু মাহরামকে সঙ্গে নেওয়ার মতো পথ খরচ ও অন্যান্য ব্যয় নির্বাহের মতো সামর্থ্য আমার নেই। এদিকে আমার পড়শি এক দম্পতি এ বছরই হজে যাচ্ছে। আমার প্রশ্ন হচ্ছে, এই প্রতিবেশী নারীর সঙ্গে আমি কি হজের সফরে যেতে পারি? কারণ আমার না হলেও তার তো মাহরাম আছে এবং এতে করে মাহরামের যে প্রয়োজনীয়তা, তথা নিরাপত্তার দিকটি নিশ্চিত হওয়া- তা তো হয়েই যাচ্ছে। আর যদি এভাবেও আমার যাওয়ার অনুমতি না থাকে শরিয়তে তাহলে ফরজ হজ আদায়ে আমার করণীয় কী?

রাহেলা খাতুন আজিমপুর, ঢাকা

জবাব : মাহরাম ছাড়া নারীদের হজে যাওয়া কোনো অবস্থাতেই জায়েজ নয়। হাদিস শরিফে রাসুলে কারিম (সা.) সাধারণ সফর এবং হজের সফর সব ক্ষেত্রেই মাহরাম ছাড়া নারীদের একাকী সফর করতে নিষেধ করেছেন। 

হজরত ইবনে আব্বাস (রা.) বর্ণনা করেছেন, নবীজি (সা.) বলেছেন, কোনো পুরুষ যেন কোনো নারীর সঙ্গে তার মাহরাম ব্যতিরেকে একাকী অবস্থান না করে। তখন এক ব্যক্তি উঠে বলল, ইয়া রাসুলাল্লাহ! আমি তো অমুক অমুক যুদ্ধের জন্য নাম লিখিয়েছি। ওদিকে আমার স্ত্রী হজের উদ্দেশে বেরিয়ে গেছে। নবীজি বললেন, ফিরে যাও। তোমার স্ত্রীর সঙ্গে হজ করো। (বুখারি : ৫২৩৩; মুসলিম : ১৩৪১)। আবু সাঈদ খুদরী (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসুলে কারিম (সা.) বলেছেন, যে নারী আল্লাহ এবং আখেরাতের প্রতি বিশ্বাস রাখে তার জন্য নিজের বাবা, ছেলে, স্বামী, ভাই বা অন্য কোনো মাহরামকে সঙ্গে না নিয়ে তিন দিন বা ততোধিক দূরত্বের পথ সফর করা বৈধ নয়। 

(মুসলিম : ১৩৪০; সুনানে কুবরা, বাইহাকী : ৩/১৩৮)। এসব হাদিস থেকে স্পষ্ট প্রমাণিত হয় যে, মাহরাম ছাড়া হজের সফরে বের হওয়া যাবে না। আর এত সুস্পষ্ট হাদিস থাকার পর এখানে ভিন্ন কোনো যুক্তি দাঁড় করানো বাঞ্ছনীয় নয়। 

সুতরাং আপনার করণীয় হচ্ছে, মাহরামদের কেউ নিজ ব্যবস্থাপনায় হজের সফরে বের হয় কিনা সেদিকে নজর রাখা অথবা কোনো এক মাহরামকে নিজ খরচে হজে নিয়ে যাওয়ার মতো অর্থ আপনার হাতে আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করা। যদি দীর্ঘদিন অপেক্ষার পরও দুটোর কোনোটাই না হয়, কিংবা ততোদিনে সফরে বের হওয়ার মতো শারীরিক সক্ষমতা লোপ পেয়ে যায় তাহলে এমন ক্ষেত্রে অন্যকে দিয়ে বদলি হজ করাবেন। (আলবাহরুর রায়েক : ২/৩১৪-৩১৫; আদদুররুল মুখতার : ২/৪৬৪-৪৬৫; মানাসিক, মোল্লা আলী কারী পৃ. : ৭৬ ও ৭৮; ইমদাদুল ফাতাওয়া ২/১৫৬; আল-কাউসার : ৯-২০১৯)


http://www.shomoyeralo.com/ad/Local-Portal_Send-Money_728-X-90.gif



http://www.shomoyeralo.com/ad/Google-News.jpg

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]