ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শুক্রবার ১ জুলাই ২০২২ ১৭ আষাঢ় ১৪২৯
ই-পেপার শুক্রবার ১ জুলাই ২০২২
http://www.shomoyeralo.com/ad/Amin Mohammad City (Online AD).jpg

বোলারদের নিয়ে সিলভারউডের হতাশা
ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২৪ মে, ২০২২, ১:২০ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 72

টস হেরে আগে বোলিং করে যে শুরুটা পেয়েছিল শ্রীলঙ্কা, অতটা সম্ভবত কল্পনাও করেনি তারা। কন্ডিশনের সুবিধা নিয়ে প্রথম আধঘণ্টায় অতিথি পেসাররা ছিলেন দুর্দান্ত। টপাটপ উইকেট তুলে নিতে থাকেন তারা। একপর্যায়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৫ উইকেটে ২৪ রান। লঙ্কানরা তখন রীতিমতো উড়ছিল। টাইগারদের দ্রুত গুটিয়ে দেওয়ার স্বপ্নে বিভোর ছিল তারা। কিন্তু লিটন দাস আর মুশফিকুর রহিমের প্রতিরোধ আর প্রতিঘাতে বিলীন হয়ে গেছে তাদের সেই স্বপ্ন। দিনভর বোলিং করে আর একটি উইকেটও তুলতে পারেননি লঙ্কান বোলাররা। উল্টো রান বিলিয়েছেন। দিনশেষে বাংলাদেশ তাই ওই ৫ উইকেট হারিয়েই ঝুলিতে জমা করে ফেলেছে ২৭৭ রান। স্বপ্নীল শুরুর পরও দিনশেষে স্কোরবোর্ডের এমন চিত্র দেখে ভীষণ হতাশ লঙ্কানদের ইংলিশ কোচ ক্রিস সিলভারউড।

দিনশেষে দলের প্রতিনিধি হয়ে সিলভারউডই সংবাদ সম্মেলনে আসেন। সেখানেই উগরে দেন নিজের হতাশা। বোলিংয়ে এমন ছন্দপতন নিয়ে লঙ্কান কোচ বলেছেন, ‘এমন শুরুর পর সেটা ধরে রাখতে না পারা, অবশ্যই এটা হতাশাজনক। আমি মনে করি, শুরুর দিককার মুভমেন্ট দুর্দান্তভাবেই ব্যবহার করতে পেরেছিলাম আমরা। শৃঙ্খলা এবং যেভাবে তারা ব্যাটারদের প্রশ্নের মুখে ফেলেছে, তাতে দুই পেসার ছিল ব্যতিক্রম। দুর্ভাগ্যবশত পরবর্তীতে এটা আমরা ধরে রাখতে পারিনি। আমরা রান করার অনেক বেশি সুযোগ দিয়েছি। যখন আমরা প্রতিপক্ষকে ভুল করতে বাধ্য করেছি, তখন ক্যাচটি নিতে পারিনি। যেটা অনেক পার্থক্য তৈরি করেছে। এটার চড়া মূল্য চুকাতে হচ্ছে আমাদের।’

সত্যিই চড়া মূল্য দিতে হচ্ছে লঙ্কানদের। কেননা ৪৭ রানে জীবন পাওয়া লিটন ক্যারিয়ারের তৃতীয় সেঞ্চুরি তুলে অপরাজিত আছেন ১৩৫ রান নিয়ে। আরেক ব্যাটার মুশফিক অপরাজিত ১১৫ রানে। দুজনে গড়েছেন রেকর্ড ২৫৩ রানের জুটি। এই জুটি বাংলাদেশকে শক্ত অবস্থানে নিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি ব্যাকফুটে ঠেলে দিয়েছে লঙ্কানদের, সিলভারউডের এমনই অভিমত, ‘তারা খুব ভালো খেলেছে। ভালো বল থেকে নিজেদের সরিয়ে রেখেছে তারা। হিট করার জন্য আমরা তাদের অনেক বাজে বল দিয়েছি। তারা দুজনে দুর্দান্ত একটা জুটি গড়ে তুলেছে। তাদের অনেক বেশি সম্মান দেখাতেই হবে, কেননা উইকেটে আসার পর থেকেই তারা স্কোরবোর্ড সচল রেখেছে। তা না হলে আমরা তাদের ওপর অনেক বেশি চাপ দিতে পারতাম। তারা বাংলাদেশকে ভালো অবস্থানে নিয়ে গেছে।’

দিনের প্রথম ঘণ্টা পেরিয়ে যাওয়ার পর সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে উইকেট ব্যাটিংবান্ধব হয়ে উঠেছে। লিটন-মুশফিকদের কাজটা তাই সহজ হয়েছে বলেও মনে করছেন সিলভারউড। তবে আজ সকালে দ্রুত এই যুগলকে ফিরিয়ে দেওয়া গেলে ম্যাচটি ফের প্রাণবন্ত হয়ে উঠবে বলেই বিশ্বাস লঙ্কান কোচের, ‘ব্যাটিংয়ের জন্য এটি ভালো উইকেট। প্রথম ঘণ্টায় কিছুটা মুভমেন্ট ছিল। সামান্য স্পিনও ধরছে। তবে আমি মনে করি না, দারুণ শুরুর পর কোনো জায়গায় ভালো বোলিং করেছি। এ ক্ষেত্রে আমাদের সৎ থাকতে হবে। আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে, কাল সকালে দ্রুত দুটো উইকেট নিতে পারলে ম্যাচটি আবার প্রাণবন্ত হয়ে উঠবে। দ্রুত উইকেট নিয়ে ম্যাচে ফেরার জন্য কাল সকালে স্টাম্পে আঘাত হানার বিষয়টি আমাদের নিশ্চিত করতে হবে।’

বোলারদের উন্নতির তাগিদ দিয়ে সিলভারউড বললেন, ‘আমরা হয়তো আরও ভালো বোলিং করতে পারতাম। এই বিষয়টা নিয়ে আমাদের ড্রেসিংরুমে কথা বলতে হবে। আমার মনে হয়, আমাদের আরও ভালো লাইন এবং লেংথে বল করতে হবে। হিট করার জন্য আমরা অনেক বেশি বল দিয়েছি। এটি সংশোধন করার জন্য আমাদের অনেক বেশি পরিশ্রম করতে হবে। এখান থেকে পালানোর পথ নেই।’


http://www.shomoyeralo.com/ad/Local-Portal_Send-Money_728-X-90.gif



http://www.shomoyeralo.com/ad/Google-News.jpg

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]