ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শুক্রবার ১৯ আগস্ট ২০২২ ৪ ভাদ্র ১৪২৯
ই-পেপার শুক্রবার ১৯ আগস্ট ২০২২
http://www.shomoyeralo.com/ad/Amin Mohammad City (Online AD).jpg

পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে খুন
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: শনিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২১, ৪:৪১ পিএম আপডেট: ০৪.১২.২০২১ ৫:০২ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 193

রাজধানীর সবুজবাগ থানাধীন কদমতলা হক আবাসিক সোসাইটি এলাকায় পাওনা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে এলোপাথাড়ি ছুরিকাঘাতে মোঃ জহির মুন্সী (২৬) নামের এক যুবককে খুন করেছে দুর্বত্তরা। এই ঘটনায় নাজমুল নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) সাড়ে ১১ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

সবুজবাগ থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই)মনোয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আমরা খবর পেয়ে সবুজবাগ কদমতলা হক আবাসিক সোসাইটির দাগ নম্বর ৩১৩/৩১৪ মৃত আবদুল বারেকের বাড়ির পাশে একটি ফাঁকা জায়গা থেকে মাটির উপর থেকে রাত সাড়ে ১২টার দিকে মরদেহ উদ্ধার করে।পরে আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরো জানান, নিহতের শরীরে ছুরিকাঘাত ও গলায় ছুরিকাঘাত করেছে এই ঘটনায় নাজমুল নামের এক ব্যক্তি আটক করা হয়েছে।জিজ্ঞাসাবাদে তিনি খুনের কথা স্বীকার করেছে। তবুও ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন রিপোর্ট পেলে বিস্তারিত জানা যাবে।

নিহতের চাচতো ভাই আল আমিন জানান, গ্রেফতারকৃত নাজমুলের সঙ্গে প্রায় ২ বছর আগে একই বাসায় থাকতেন জহির। তখন তার কাছ থেকে ৭ হাজার টাকা নেন নাজমুল। মাঝেমধ্যে জহির তার কাছ থেকে পাওনা টাকা চাইতেন। সবশেষ গতরাতে  নাজমুলের কাছ থেকে জহির  টাকা চাইলে নাজমুল জানায়. ‘আমি তোমাকে ফোন দিব’। 

পরে রাতের দিকে মোবাইল ফোনে তাকে বলে ‘তুমি এসে টাকা নিয়ে যাও’। গিয়ে টাকা চাওয়া মাত্রই হলে কিসের টাকা পাবি, কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে পরে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তার গলায় ছুরি দিয়ে আঘাত করে। নাজমুলসহ আরো কয়েকজন পালিয়ে যাওয়ার সময়  এলাকাবাসী তাকে ধরে ফেলে। পরে তাকে পুলিশকে সোপর্দ করা হয়। অন্যদিকে ঘটনাস্থলেই মারা যান জহির, পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

আল আমিন জানান,জহিরের গ্রামের বাড়ি, চাঁদপুর সদর জেলার,সাকুয়া গ্রামের, মোকলেস মুন্সির সন্তান।বর্তমানে,বি/১৮ হক আবাসিক সোসাইটি কদমতলা এলাকার একটি বাসায় থাকতেন। নিহত তিন ভাই তিন বোনের মধ্যে এসেছিল তৃতীয়। নিহত ব্যক্তি হক সোসাইটি এলাকায় চায়ের দোকান রয়েছে। নিহত এক মেয়ের জনক ছিলেন।

/এমএইচ/




http://www.shomoyeralo.com/ad/Google-News.jpg

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]