ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
ই-পেপার মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

অনিবন্ধিত মোবাইল সেট কোন নিয়মে বন্ধ হচ্ছে
আইসিটি ডেস্ক
প্রকাশ: রোববার, ১৭ অক্টোবর, ২০২১, ১:৫৩ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 150

বাংলাদেশে ১ অক্টোবর থেকে অবৈধ হ্যান্ডসেট ব্যবহার করা যাবে না বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। এটি অবশ্য পুরনো খবর। নতুন খবর হলো, ‘বন্ধ হচ্ছে না অনিবন্ধিত মোবাইল ফোনসেট।’ শুনে অবাক হলেও তেমনি এক তথ্য জানিয়েছে বিটিআরসি কর্মকর্তারা।

বিটিআরসির কমিশনার একেএম শহিদুজ্জামান জানান, যেসব ফোন রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে আমদানি করা হয়েছে সেগুলো অবৈধ। এই অবৈধ ফোন যখন চালু করতে যাবে তখন গ্রাহকের কাছে বিটিআরসির সিস্টেম থেকে মেসেজ চলে যাবে। সেখানে জানানো হবে, ‘আপনার ফোনটি বৈধ নয়, তাই নবায়ন করা যাচ্ছে না, যেকোনো সময় বন্ধ হয়ে যেতে পারে।’ 

তখন ওই গ্রাহক যেখান থেকে মোবাইল কিনেছেন সেখান থেকে পাল্টে আনতে হবে অথবা টাকা ফেরত আনতে হবে। তবে কোনো গ্রাহক হয়রানি হবে না। তবে ১ অক্টোবরের পর থেকে যারা হ্যান্ডসেট কিনছেন তাদের আইএমইআই রেজিস্ট্রেশন যাচাই করে নিয়ে কেনার পরামর্শ দেন তিনি।

তারপরও কিছু প্রতিবন্ধকতা থেকেই যাচ্ছে। বিটিআরসি জানায়, ১ জুলাই থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পরীক্ষামূলকভাবে তথ্য যাচাই করে দেখা গেছে, এ সময়ে বাংলাদেশে প্রায় ১ কোটি সাড়ে ৮ লাখ মোবাইল ফোন বিক্রি হয়েছে। তার মধ্যে প্রায় সাড়ে ৩১ লাখ সেটকে অবৈধ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এই ফোনগুলোর ভবিষ্যৎ নিয়ে রয়েছে কিছুটা ধোঁয়াশা। বিটিআরসি জানিয়েছে, এই সেটগুলো পর্যায়ক্রমে বন্ধ করা হবে। তবে তার আগে তারা সতর্কতা হিসেবে পাবেন একটি করে এসএমএস। এরপর সেটের মালিকেরা তাদের সেটের নিবন্ধনের জন্য যথাযথ ডকুমেন্টসহ বিটিআরসিকে আবেদনের জন্য কিছু সময় পাবেন। কিন্তু এই এসএমএস পাওয়ার পরও কোনো ডকুমেন্ট সরবরাহ করতে ব্যর্থ হলে সেটগুলো বন্ধ করে দেওয়া হবে।
অবৈধ হ্যান্ডসেট সার্বিক নিরাপত্তার জন্য হুমকি। আর এ কারণেই তা বন্ধে বিটিআরসি এর আগে একাধিকবার পদক্ষেপ নেয়। প্রতিবারই এই সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে কিন্তু চূড়ান্ত করা হয়নি। তবে ১ অক্টোবর যেই সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে সেক্ষেত্রে আর কোনো ছাড় মিলবে না বলেও জানিয়েছে বিটিআরসি।

বিষয়টি নিয়ে অবশ্য এরপরও প্রশ্ন থেকে যাচ্ছে। পহেলা অক্টোবরের পর থেকে বিদেশ থেকে গিফট হিসেবে আসা ফোনগুলোও কী তাহলে বন্ধ হয়ে যাবে?

এমন প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাচ্ছে বিটিআরসির ওয়েবসাইটে। সেখানে বলা হয়েছে, বিদেশ থেকে গিফট হিসেবে আসা মোবাইলের সঙ্গে এখন থেকে তার বিলও প্রেরণ করতে হবে। অথবা বিদেশ থেকে কিনে নিয়ে আসা ফোনের সঙ্গে যত্ন করে সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে তার বিল। এই বিল সাবমিট করার ব্যবস্থা রয়েছে বিটিআরসি’র ওয়েবসাইটে। সেই বিল যাচাইবাছাই শেষে বিটিআরসি ফোনটি ব্যবহারের জন্য আপনার ইএমআই কোডটি রেজিস্ট্রার করে নেওয়ার পর থেকে ব্যবহার করা যাবে এমন সেট।

মোবাইল সেটের বৈধতা যাচাই করবেন যেভাবে
মোবাইল সেটের বৈধতা যাচাই করতে নতুন মোবাইলটিতে একটি সিম লাগিয়ে *#০৬# ডায়াল করুন। তাহলে আপনি ওই মোবাইলের আইএমইআই কোড পাবেন। একটা কথা বলে রাখি, সব মোবাইলের আইএমইআই কোড চেক করার জন্য আপনাকে *#০৬# ডায়াল করতে হবে। তারপর ওখান থেকে কোডটি কপি করে নিয়ে আপনার যেকোনো ফোনের মেসেজ বক্সে লিখবেন কণউ <স্পেস> আইএমইআই কোড (যেমন : কণউ ১২৩৪৫৬৭৮৯০)। তারপর এটি পাঠিয়ে দিন ১৬০০২ নম্বরে। কিছুক্ষণের মধ্যে আপনি একটি রিটার্ন মেসেজ পাবেন যেখানে আপনাকে বলে দিবে এটি বিটিআরসির ডাটাবেজে আছে কি না। যদি থাকে তাহলে এটি বৈধ মোবাইল হিসেবে বিবেচিত হবে। এভাবে আইএমইআই চেক করার নিয়ম অনুসরণ করুন।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]