ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১ ৩ কার্তিক ১৪২৮
ই-পেপার সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

ঋতুবতী স্ত্রীদের সঙ্গে আচরণ কেমন হবে?
ইসলামের আলো ডেস্ক
প্রকাশ: বুধবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২১, ১১:০০ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 103

হায়েজ বা পিরিয়ড নারীদের স্বাভাবিক বিষয়। আল্লাহ তায়ালা এতে কল্যাণ রেখেছেন। তবে ইসলামপূর্ব যুগে ইহুদিরা ঋতুবতী নারীদের সঙ্গে অত্যন্ত খারাপ আচরণ করত, তাদেরকে ঘরের বাইরে ঘোড়ার আস্তাবলে রেখে দিত, ভালোমতো খাবার গ্রহণ করতে দিত না, সমাজের লোকেরা তাদের সঙ্গে এ সময়ে দেখা-সাক্ষাৎ বন্ধ রাখত। মক্কার মুশরিকরাও ঋতুবতী নারীদেরকে অবজ্ঞার চোখে দেখত এবং আলাদা ঘরে রাখত। 

হজরত যুহাইর ইবনে হারব (রা.) বর্ণনা করেন, মক্কা-মদিনায় ঋতুবতী নারীদের সঙ্গে এমন আচরণ দেখে সাহাবীরা কী করবেন, আল্লাহর রাসুলের (সা.) কাছে জানতে চাইলে আল্লাহ তায়ালা এ আয়াত অবতীর্ণ করলেন- ‘তারা আপনার কাছে হায়েজ সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করে। আপনি বলে দিন, সেটা কষ্টকর মুহূর্ত। সুতরাং তোমরা হায়েজকালে যৌনমিলন করবে না, পবিত্র না হওয়া পর্যন্ত। তারা যখন পবিত্র হবে তখন তাদের নিকট ঠিক সেভাবে গমন করবে যেভাবে আল্লাহ তোমাদেরকে আদেশ দিয়েছেন।’ (সুরা বাকারা : ২২২)। 

এরপর রাসুলুল্লাহ (সা.) বললেন, ‘তোমরা সে সময় তাদের সঙ্গে শুধু সহবাস ছাড়া অন্যান্য সব কাজ করবে’। এ খবর ইহুদিদের কাছে পৌঁছলে তারা বলল, ‘এ লোকটি সব কাজেই শুধু আমাদের বিরোধিতা করতে চায়!’ (তাফসিরে ইবনে কাসির : ১/৬০৯; মুসলিম : ২/৬০১)। ঋতুবতী নারীদের অপয়া-অস্পৃশ্য মনে করা মূলত ইহুদি সমাজের আচরণ। আল্লাহর রাসুল (সা.) তার স্ত্রীদের সঙ্গে ঋতুবতী অবস্থায় একসঙ্গে খাওয়া-দাওয়া করতেন, একই বিছানায় একই চাদরে ঘুমাতেন, একসঙ্গে গোসল করতেন, উভয়ে উভয়ের মাথা আচড়িয়ে দিতেন; বরং এ সময় তিনি স্ত্রীদের ঘরোয়া কাজে বেশি বেশি সহযোগিতা করতেন এবং মানসিকভাবে অতিরিক্ত সাপোর্ট দিতেন। 

হজরত আয়েশা (রা.) বলেন, আমি ঋতুবতী অবস্থায় পানি পান করতাম। আমি যেখানে মুখ লাগিয়ে পান করতাম, আল্লাহর রাসুল (সা.) ঠিক সে স্থানে মুখ লাগিয়ে পান করতেন। আমি ঋতুবতী অবস্থায় হাড় খেয়ে রাখতাম, নবীজি (সা.) ঠিক সেখানে মুখ লাগিয়ে চিবুতেন, যেখানে আমি চিবিয়ে রেখেছি।’ (মুসলিম : ২/৫৯৯; ইবনে মাজা : ১/৬৩৪; মুসনাদে আহমাদ : ১/৩২৭)। স্ত্রীদের ঋতুস্রাবকালীন সহবাস ব্যতীত যাবতীয় জাগতিক কাজ-কর্মে সহযোগিতা ও পারস্পরিক সুসম্পর্ক বজায় রাখা ইসলামের আদর্শ। আল্লাহ বোঝার ও আমল করার তাওফিক দান করুন।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]