ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১ ৩ কার্তিক ১৪২৮
ই-পেপার সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

মুসা বিন শমসের অন্তঃসারশুন্য ও ভুয়া লোক : ডিবি
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ১২ অক্টোবর, ২০২১, ৯:১৬ পিএম আপডেট: ১২.১০.২০২১ ৯:৪৮ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 172

মুসা বিন শমসের  অন্তসারশুন্য। তিনি একজন ভুয়া লোক। মানুষ তাকে যা ভাবে অথবা তিনি নিজের সম্পর্কে সবাইকে যেভাবে বলেন অর্থাৎ তার অনেক টাকা ও সম্পদ রয়েছে- এটা আসলে ভুয়া। তার আসলে কিছুই নাই। মুসা বিন শমসের সম্পর্কে এসব কথা বলেছেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) যুগ্ম কমিশনার (উত্তর) হারুন অর রশীদ। মঙ্গলবার স্ত্রী-পুত্রসহ মুসা বিন শমসেরকে সাড়ে তিন ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তিনি এ কথা বলেন। একই সময়ে অতিরিক্ত সচিব পরিচয়দানকারী আবদুল কাদেরের প্রতারণার দায় মুসা বিন শমসের এড়াতে পারবেন না বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

হারুন অর রশীদ বলেন, মুসার গুলশানে একটা বাড়ি রয়েছে। তাও তার স্ত্রীর নামে। বাংলাদেশে তার নামে আর কিছুই পাই নাই। তবে মানুষের সামনে তিনি গল্প বলতেন- তার অনেক কিছু রয়েছে। বাংলাদেশের উন্নয়নে তিনি যা করেছেন তা বাংলাদেশের আর কেউ করেনি। এদেশে যা উন্নয়ন হয়েছে- সব তার অবদান।

তিনি আরো বলেন, সুইস ব্যাংকে ৮২ বিলিয়ন কোটি টাকা পেলে তিনি পুলিশকে দেবেন ৫০০ কোটি টাকা, পাবনা মেন্টাল হাসপাতালে দেবেন ১০০ কোটি টাকা, দুদককে ভবন করে দেওয়াসহ দ্বিতীয় পদ্মা সেতু করে দেওয়ার কথাও বলেছেন। আমার কাছে রহস্যময় মানুষ মনে হলো মুসা বিন শমসেরকে।  

অতিরিক্ত সচিব পরিচয়দানকারী আবদুল কাদেরের প্রতারণার দায় মুসা বিন শমসের এড়াতে পারবেন না বলে মন্তব্য করে ডিবির এ যুগ্ম কমিশনার বলেন, প্রতারক কাদেরকে আইন উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন মুসা। তাকে ২০ কোটি টাকার চেকও দিয়েছেন। তাকে ‘বাবা’, ‘সোনা’ বলে ডাকতেন। জিজ্ঞাসাবাদে মুসা দাবি করেছেন- তিনি কাদেরের প্রতারণার বিষয়ে কিছু জানেন না। একজন নাইন পাস লোককে না বুঝে কীভাবে নিয়োগ দেওয়া হলো সেটি নিয়েও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। এছাড়া তার কাছ থেকে ১০ কোটি টাকা নিয়ে কীভাবে লাভসহ ২০ কোটি টাকার চেক দিলেন সে বিষয়েও জিজ্ঞাসা করা হয়েছে। কাদেরের সম্পর্কে বেশি জানেন না এমন কথা বললেও তাদেও দুজনের মধ্যে অজস্র কথপোকথন পেয়েছি। প্রয়োজনে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আবারও ডাকা হতে পারে।

মুসা বিন শমসের বলেন, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ভুয়া অতিরিক্ত সচিব আব্দুল কাদের একজন মিথ্যাবাদী। তার সাথে আমার কোন পরিচয় নাই। আমিও প্রতারণার শিকার হয়েছি। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমার সাথে অনেকেই ছবি তুলেছে। কেউ ছবি তুলে তা খারাপ উদ্দেশ্যে ব্যবহার করলে কি করার আছে আমার। দশম শ্রেণি পড়ুয়া একজন মানুষ কি ভাবে আমার উপদেষ্টা হয়। আমি তাকে চিনি না। এ ভুয়া অতিরিক্ত সচিবের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবো, তার বিরুদ্ধে মামলা করবো।

প্রসঙ্গ, সম্প্রতি অতিরিক্ত সচিব পরিচয়দানকারী আবদুল কাদের নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে ডিবি। তার সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে জানতেই মুসা বিন শমসেরকে গতকাল মঙ্গলবার ডিবি কার্যালয়ে ডাকা হয়েছিল। বিকেল সাড়ে ৩টায় মুসা, তার স্ত্রী শারমিন চৌধুরী ও ছেলে জুবেরী হাজ্জাজ ডিবি কার্যালয়ে হাজির হন। প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা তাদেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।
/এমএইচ/




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]