ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা রোববার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ৩ আশ্বিন ১৪২৮
ই-পেপার রোববার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

২ শিশুসহ ভাই-ভাবিকে হত্যা : একজনের ফাঁসি
সাতক্ষীরা প্রতিনিধি
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১০:৩৩ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 77

সাতক্ষীরার কলারোয়ার হেলাতলা ইউনিয়নের খলিশা গ্রামে দুই শিশু ও ভাই-ভাবিকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় একমাত্র আসামি রায়হানুর রহমানকে (৩৬) দোষী সাব্যস্ত করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার হত্যাকাণ্ডের ১০ মাস ১৬ দিন পর সাতক্ষীরার সিনিয়র দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমান এক জনাকীর্ণ আদালতে এই আদেশ দেন। একই আদেশে আসামিকে সাত দিনের মধ্যে উচ্চ আদালতে আপিলের জন্য সময় দেওয়া হয়েছে। 

আসামি রায়হানুর রহমান সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার হেলাতলা ইউনিয়নের খলিশা গ্রামের প্রয়াত ডা. শাহজাহান আলীর ছেলে।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, কলারোয়া উপজেলার হেলাতলা ইউনিয়নের খলিশা গ্রামের শাহজাহান ডাক্তারের বড় ছেলে মো. শাহীনুর রহমান ৮ বিঘা জমিতে পাঙ্গাশ মাছ চাষ করেন। মেঝ ছেলে আশরাফ আলী মালয়েশিয়ায় থাকেন। ছোট ছেলে রায়হানুর রহমান বেকার। বেকারত্বের কারণে বড় ভাই শাহীনুরের সংসারে সে খাওয়া-দাওয়া করত। কোনো কাজ না করায় গত বছরের ১০ জানুয়ারি স্ত্রী তালাক দেয় রায়হানুর রহমানকে। এরপর রায়হানুর বড় ভাই শাহীনুুরের সংসারে খাওয়া-দাওয়া করত। সংসারে টাকা দিতে না পারায় বড় ভাই শাহীনুরের স্ত্রী দেবর রায়হানুরকে মাঝেমধ্যে গালমন্দ করতেন। এরই জের ধরে গত বছরের ১৪ অক্টোবর রাতে ভাই মো. শাহীনুর রহমান (৪০) ভাবি সাবিনা খাতুন (৩০), তাদের ছেলে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র সিয়াম হোসেন মাহী (১০) ও মেয়ে দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী তাসমিন সুলতানাকে (৮) কোমল পানীয়ের সঙ্গে চেতনানাশক বড়ি খাওয়ায় রায়হানুর। ভোর ৪টার দিকে হাত ও পা বেঁধে তাদেরকে একে একে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করে রায়হানুর। হত্যাকারী ওই পরিবারের ৪ মাসের শিশু মারিয়াকে হত্যা না করে লাশের পাশে ফেলে রেখে যায়।

এ ঘটনায় নিহত শাহীনুরের শাশুড়ি কলারোয়া উপজেলার উফাপুর গ্রামের রাশেদ গাজীর স্ত্রী ময়না খাতুন বাদী হয়ে কারও নাম উল্লেখ না করে থানায় ১৫ অক্টোবর একটি হত্যা মামলা করেন।

মামলার তদন্তে নেমে পুলিশের অপরাধী ও তদন্ত শাখার (সিআইডি) সাতক্ষীরা অফিসের পুলিশ পরিদর্শক শফিকুল ইসলাম সন্দিগ্ধ আসামি হিসেবে নিহত শাহীনুরের ভাই রায়হানুর রহমান, একই গ্রামের রাজ্জাক দালাল, আব্দুল মালেক ও ধানঘরা গ্রামের আসাদুল সরদারকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত রায়হানুরকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে ২১ অক্টোবর সিনিয়র বিচারিক হাকিম বিলাস মণ্ডলের কাছে একাই হত্যার দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয়। মামলার ১৮ জন সাক্ষীর জবানবন্দি ও নথি পর্যালোচনা শেষে আসামি রায়হানুর রহমানের বিরুদ্ধে চারজনকে হত্যার অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক তাকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার নির্দেশ দেন।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]