ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা রোববার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ৩ আশ্বিন ১৪২৮
ই-পেপার রোববার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

এ সপ্তাহের কবিতা
আলোর রেখা ডেস্ক
প্রকাশ: শুক্রবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৯:৫৪ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 71

আর দেখা হবে না 
মনিরুল আলম 

কতদিন, কত বছর আগে 
দুজনের হয়েছিল দেখা
মাধবী ফুটেছিল কি সে রাতে
পঞ্চমী চাঁদ উঠেছিল কি সে রাতে। 

ভালো করে আজ পড়ে না মনে 
ঠিক কোথায় প্রথম হয়েছিল দেখা তোমার সনে
হয়তো হয়েছিল দেখা দুজনার আকুল করা এক 
শ্রাবণ সন্ধ্যায় 
অথবা মন উতল করা চাঁদনী রাতে কাক জোছনায়
হয়তো সে রাতে গেয়েছিল গান রাতজাগা এক পাখি 
আকুল সুরে বিরহী সে পাখি খুঁজেছে তার সাথি। 

কী হবে সে কথা ভেবে 
এতদিন, এত বছর পেরিয়ে এসে 
আমাদের ভালোলাগার, মুখোমুখি বসার 
স্মৃতিমেদুর সেইসব দিন
শিমুল তুলোর মতো চৈতি বাতাসে কখন 
সে দিন গেছে ভেসে
এ জীবনে হয়তো দুজনার আর দেখা হবে না 
বেণু-বীণা এক সুরে আর বাঁধা হবে না। 

তবু জানি আমি প্রিয়, আবার আসবে ফিরে 
মন উদাস করা মাধবী রাত, মায়াভরা চৈতালি সন্ধ্যা।
নির্মেঘ আকাশে ফুটবে কিছু কিছু তারা 
ধীরে ধীরে ফুটবে সুরভি ছড়ায়ে একটি দুটি 
ভীরু রজনিগন্ধা।

তখন হয়তো সুন্দর পৃথিবীর সব মায়া কাটিয়ে 
চলেছি একা আমি ক্লান্ত পায়ে না-ফেরার দেশে 
অথবা সফেদ জোছনায় ভেসে যাওয়া রাতে
চলেছ তুমি অচিন এক দেশে 
ফেরে না হায় যেখান থেকে কেউ কোনো দিন
চলেছি সেখানে আমি সাথে নিয়ে তোমার ভালোবাসার ঋণ। 


অপেক্ষার খেয়াঘাট
বদরুল হায়দার 

তুমিহীন সম্পর্কের অবনতি মানে নিঃসঙ্গতার 
ভোগান্তি চ্যালেঞ্জ। প্রাণ চাঞ্চল্যের হৃদয় বাড়িতে 
উত্তেজনা।মন পারমিটে কূটনৈতিক ব্যর্থতা সঙ্কট। 
ই কমার্সে লাভক্ষতির মলিন হাওয়ার গুপ্ত অভিমান। ইন্টারনেটে মনের হাটে নকল ও প্রতারক 
বাসা বাঁধে। আশারা ভালোবাসার সাগরে 
ভেসে দূরদেশে চলে যায়
জরুরি আবেগে সাবধানতার মেঘে উড়ায় বেদা।
গণমুখী উদারতা বিবেকের কাছে জমা রাখে
সত্য প্রেম। কথার লড়াই চলে স্বার্থের চমকে।
শাটডাউনের সঙ্গে লকডাউনের ভয়ের অজানা
লোভে ক্যাশব্যাকে খোলা মনপত্রের ঘোষণা।
প্রেম ডিজাস্টারে স্বপ্নের তাণ্ডবে ফোঁটায় সান্ত¦না।
হৃদয় দুর্ভোগ জেনে বিরহের হাটে আনন্দকে সঙ্গে নিয়ে
নিজের অধীনে প্রেম বদলায় দৃশ্যপটে।
চির অভিমান বাসা বাঁধে অপেক্ষার খেয়াঘাটে।



ছায়াপুরুষের ঘুম ভেঙে যায় 
ফখরুল হাসান 

প্রায় রাতেই ছায়াপুরুষের ঘুম ভেঙে যায় 
অথবা ঘুম ভেঙে দাও দেবীমূর্তি হয়ে 
 চোখ খুলে ফিরে যাই অপ্রাপ্তির সময়ে 
মনখারাপের নতুন দিন শুরু, তবে কেন?
কেন? আজকাল এভাবে তুমি হানা দাও?
 
প্রথম কামনা প্রথম কাছে আসা তুমি
জন্মভূমি এখন শ্মশান, সুখকর সময়
শুকনো বকুল, রক্তজবার অঞ্জলি দিয়ে। 
ফেরারি সময় নিয়ে পালিয়ে আসা শহরে 
তবুও কেন তুমি...?

আঁধার মাঠে এখন জোনাকির আলো 
সেখানে কী আছে অবশিষ্ট! 
কেন? কেন? তুমি শুকিয়ে যাওয়া ঘায়ে
বারবার স্মৃতির লবণ দিয়ে বেদনা জাগাও।
পরাজিত ছায়াপুরুষ তুলে গেছে 
অথবা তুলতে চায় ছায়াময় সেই সময়।



আমি সেই শরৎ
নমিতা সরকার

জানালার ফাঁকে উঁকি দেওয়া ভোরের সোনালি আলো, 
চোখের তারায় চুমু এঁকে বলে; আমি এসেছি 
তোমার পরশ পেতে, তোমার চোখের তারার কাব্য হতে। 
তুমি চিনতে পেরেছো কি? 
আমি তোমার কে? 
আমি তোমার সেই শরৎ...
যার প্রতীক্ষায় তুমি কাশবনের পাশে বহমান নদীর
তীরে ভিড় কর অধির আগ্রহে,
শুভ্র মেঘের নীলে ভেসে বেড়াও দুচোখের স্বপ্ন এঁকে।
আমি তোমার সেই শরৎ...
যার জন্য তুমি দুবাহুতে ভোরের শিউলির
সুগন্ধ নিয়ে হারিয়ে যাও অনাবিল আনন্দে,
রাতের তারায় তারায় খুঁজে নাও সুখ,
যে সুখের স্পর্শে শিহরিত তোমার বুক।

আমি তোমার সেই শরৎ...
সেই প্রেম
শুভ্র মেঘের নীলে...



ঘর
শ র ৎ সে লি ম

ঘর কেনো খোলে দিলো তার প্রলুব্ধ কপাট 
শুধু শুধু এলোমেলো হাতগুলো চোখগুলো কাজল আয়নায় বারবার

কান নাক আর মৃত মৌবন সহসা মেলে দিলো হলুদ সারস সন্ধ্যা-রঙ
চোখের রক্তে আলতা পরাতে কেনো জানি শামুক গোপনে হেসেছিলো কতকাল
ঘর, কারো কারো ঘর ঘরের উপরেই 

সাপ আর ঘর 
ঘর সাপের মতোই কেবল মানুষের মতোই।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]